সোনাক্ষী সিনহার বলিউডি ক্যারিয়ার ১০ বছর

পুরস্কারে আস্থা নেই সোনাক্ষীর

প্রকাশিত: ৬:৫৭ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২০

সোনাক্ষী সিনহার বলিউডি ক্যারিয়ার ১০ বছরের। ২০টির বেশি ছবি আছে তাঁর ঝুলিতে। ‘দাবাং–কন্যা’ হিসেবে পরিচিত এই অভিনেত্রী ক্ষোভ ঝাড়লেন চলচ্চিত্র পুরস্কার নিয়ে। শুধু তা–ই নয়, কথা বললেন সিনেমা বাগাতে প্রযোজকদের কাছে নায়িকাদের তদবিরের বিষয় নিয়েও।

সোনাক্ষী বলেন, ‘এখানে বন্ধু আসে, বন্ধু যায়। বলিউডে সব সুসময়ের বন্ধু। তদবির করে কাজ বাগানোর ব্যাপারে আমি কখনোই ভাবিনি। কখনো কোনো প্রযোজকের কাছে গিয়ে কাজ ভিক্ষা চাইনি। আমার সব সময় নিজের যোগ্যতার ওপর বিশ্বাস ছিল। আমি আমার কাজগুলো যোগ্যতা দিয়েই পেয়েছি।’

বলিউডের পুরস্কার-সংস্কৃতি নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন এই বলিউড অভিনেত্রী। তাঁর ভাষায়, যোগ্যদের পুরস্কার দেওয়া হয় না। তিনি বলেন, ‘আমির খান, কঙ্গনা রনৌতের মতো অভিনয়শিল্পীদের দিয়ে প্রমাণিত হয়েছে, ভালো কাজ করলেও পুরস্কার দেওয়া হয় না। যদি কারও বন্ধু হওয়ার কারণে পুরস্কার দেওয়া হয়, তাহলে আমায় ক্ষমা করুন। এ নিয়ে আমার কোনো আগ্রহ নেই। আমি খুশি দর্শক আমায় পুরস্কার দেন।’

লুটেরা ছবির জন্য এক চলচ্চিত্র পুরস্কার আসরে সোনাক্ষী ক্রিটিকস অ্যাওয়ার্ডের জন্য মনোনীত হয়েছিলেন। কিন্তু অ্যাওয়ার্ডটি চলে যায় জনপ্রিয় শাখায় পুরস্কার পাওয়া শিল্পীর কাছে। এতে বেশ ব্যথিত হন সোনাক্ষী। তিনি বলেন, ‘এটা সত্যি অদ্ভুত ছিল। আমি সংগঠকদের প্রশ্ন করি যে ক্রিটিকস পুরস্কার কী করে সেই নায়িকাকে দেওয়া হলো, যে ইতিমধ্যে জনপ্রিয়তার নিরিখে পুরস্কার পেয়েছেন। তখন আমাকে বলা হয় যে সেই নায়িকার বক্স অফিস রেকর্ড বেশ ভালো। এ কথাটা আমার ঠিক হজম হয়নি। এরপর থেকে পুরস্কারের প্রতি আমার ভরসা উঠে গেছে।’
সোনাক্ষী সিনহা এখন ব্যস্ত ভুজ: দ্য প্রাইড অব ইন্ডিয়া ছবির কাজে। এই ছবিতে তাঁর বিপরীতে দেখা যাবে অজয় দেবগনকে।

সূত্রঃ প্রথম আলো