কলমাকান্দা পাইলট মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে দুনীতি

কলমাকান্দায় প্রধান শিক্ষকের দুর্নীতির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

প্রকাশিত: ৫:৪৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ২০, ২০২০

নেত্রকোনার কলমাকান্দা পাইলট মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইলিয়াস হোসেনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে তদন্ত শুরু হয়েছে। রোববার সকাল থেকে নেত্রকোনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. আব্দুল্লাহ আল মাহমুদের নেতৃত্বে এ তদন্ত শুরু হয়।

জানা যায়, গত ২১ জুন কলমাকান্দা পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইলিয়াস হোসেনের বিরুদ্ধে সরকারি চিঠি গোপনসহ নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ এনে ২৬ জন শিক্ষক ও কর্মচারীর স্বাক্ষরীত একটি অভিযোগ নেত্রকোনা জেলা প্রশাসক বরাবর দায়ের করেন। তারা এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্থানীয় এমপি মানু মজুমদার, বিভাগীয় কমিশনার, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, ময়মনসিংহ দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন দপ্তরে অনুলিপি জমা দিয়েছেন।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ইলিয়াস হোসেন বিদ্যালয়ের ২৯ জন শিক্ষক ও কর্মচারীদের আত্মীকরণের জন্য প্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো চিঠি গোপন করেছেন। ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার্থীদের স্পেশাল ক্লাসের নাম করে বিপুল পরিমান টাকা আত্মসাৎ করেন। তিনি বিধি বর্হিভূতভাবে বিদ্যালয় তহবিল থেকে মোবাইল ভাতার নামে প্রচুর টাকা উত্তোলনসহ বিদ্যালয়ের অপ্রয়োজনীয় ঘর মেরামতের নামে বিপুল পরিমান টাকা হাতিয়ে নেন।

তাছাড়া ৬ষ্ঠ শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষার নাম করে প্রায় ৫শ শিক্ষার্থীর কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা আদায় করেন। প্রধান শিক্ষকের অপসারণ ও বিচার চেয়ে গত ১৮ জুন বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে সাবেক শিক্ষার্থী, শিক্ষার্থীর অভিভাবক ও স্থানীয় লোকজনের অংশগ্রহণে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।