ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে পূর্বধলায় আনন্দমোহন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত: ২:০৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১২, ২০২০

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে নেত্রকোণার পূর্বধলায় শেখ রাসেল (২৩) নামের এক কলেজ ছাত্র ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে। বুধবার (১১ নভেম্বর) রাতে এ ঘটনা ঘটেছে। সে উপজেলার বিশকাকুনী ইউনিয়নের ধোবারুহী গ্রামের হাফেজ মাওয়ানা আবদুল বারীর ছেলে এবং ময়মনসিংহ আনন্দমোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র। পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

জানা গেছে, রাসেলের বাবা স্থানীয় একটি মাদ্রাসার শিক্ষকতা করতেন। বুধবার রাত ৮টার দিকে তিনি স্টোক করে মারা যান। পিতা মৃত্যুর শোক সহ্য করতে না পেরে পুত্র মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে ঘরের আড়ায় গলায় ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করে।

মৃত্যুর আগে শেখ রাসেলের স্ট্যাস্টাস- আমার দুনিয়ায়, আমার আখেরাত আমার আব্বা! ডঃ মাত্র আব্বা রে মৃত ঘোষণা করলো! দোয়া চাই, অবশ্যই আব্বা কে একা ছাড়বো নাহ..আমিও সঙ্গী হবো, ইনশাআল্লাহ। আমার দুনিয়া, আমার আব্বা আমার সব, আমার কলিজ।
আমার অক্সিজেন ফুরিয়ে গেল, আমার দেহ থেকে কলিজা বিছিন্ন হলো! বাবা আমাদের জন্য আমৃত্যু সংগ্রাম করে গেলেন প্রতিদান দিলাম, দুশ্চিন্তা, ক্রোধ, আর নানা বাজে কাজ! আব্বা তুমি আমার সুপার হিরো! আমার বেঁচে থাকার সম্বল তুমি নাই আমি কি করে থাকবো বলো? ১০টা বেজে গেল, কই তোমার ফোন তো আসলো নাহ! কই আমার খোঁজ তো কেউ নিলো নাহ।