সড়ক দূর্ঘটনায় চালকসহ পূর্বধলার একই পরিবারের ৬ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত: ৪:৩৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩, ২০২১

নেত্রকোণা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের দয়ারামপুর এলাকায় সিএনজি ও শাহ্জালাল বাসের সংঘর্ষে একই পরিবারের ৫ জনসহ ৭সিএনজি যাত্রী নিহত হয়েছেন। আজ রবিবার (৩ জানুয়ারি) দুপুরে স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। শ্যামগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নয়ন চন্দ্র দাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন, পূর্বধলা উপজেলার আগিয়া ইউনিয়নের ফেচুয়ালেঞ্জি গ্রামের মৃত হামেদ আলীর ছেলে নিজাম উদ্দিন (৪০), মাওলানা ফারুক আহামেদ (৩০), ফারুকের স্ত্রী মাসুমা আক্তার (২২), নবজাতক শিশু, বোন জুলেখা বেগম (২২) ও ফারুকের চাচাত আজিম উদ্দিনের স্ত্রী জোৎস্না বেগম (৩৫) ও ময়মনসিংহ সদরের চর লক্ষিপুর গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে সিএনজি চালক রাকিবুল হাসান সোহাগ (২৯)।

শ্যামগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নয়ন চন্দ্র দাস জানান, আজ আনুমানিক বেলা ১২টায় নেত্রকোনাগামী একটি সিএনজি অটোরিকশা ময়মনসিংহ-নেত্রকোণা সড়কের গাছতলা এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা শাহজালাল নামক একটি বাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই সিএনজিচালকসহ ৭জন নিহত হয়। নিহতদের লাশ উদ্ধার করে শ্যামগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে।