মনগড়া তথ্যে সংবাদ প্রকাশ ও চাঁদা চাওয়ায় অভিযোগে পূর্বধলা সরকারি কলেজের সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত: ৩:৫১ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৩০, ২০২১

নেত্রকোনার পূর্বধলায় প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক মো. জায়েজুল ইসলামের বিরুদ্ধে চাঁদা দাবী, পূর্বধলা সরকারি কলেজর রিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট, মনগড়া তথ্য সংবাদমাধ্যমে উপস্থাপন। কলেজের সুনাম ক্ষুন্ন করার প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে কলেজ অধ্যক্ষের রুমে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. আনোয়ারুল হক।
তার লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করে বলেন, “প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জায়েজুল ইসলাম ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করলে, তিনি চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। এর প্রেক্ষিতে জায়দুল ইসলাম রাগের বশবর্তী হয়ে স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পূর্বধলা সরকারি কলেজের বিষয়ে তার ফেসবুকে কলেজ সম্পর্কে চুলকানির বিষয় উল্লেখ করেছেন। কলেজ বিষয়ে বিভিন্ন ধরনের অবাস্তব সংবাদ পরিবেশন করে চলেছেন। যার মাধ্যমে পূর্বধলার জনগন বিভ্রান্ত হচ্ছে এবং কলেজের সুনাম নষ্ট হচ্ছে।
এমতাবস্থায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রেসক্লাবের সভাপতিকে আকর্ষণ করে বলেন, উক্ত বিষয়টি সতর্ক দৃষ্টি রাখেন। শুধুমাত্র সরকারি কলেজ নয়। প্রেসক্লাবের কার্যক্রমের সাথে প্রেসক্লাবের মান তথা পূর্বধলার মানুষের ভাবমূর্তি এবং পূর্বধলা উপজেলার মান সম্মান জড়িত রয়েছে।”
এ সময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী অধ্যাপক মো. হাবিবুর রহমান, প্রভাষক এমদাদুল হক বাবুল, জাহাঙ্গীর আলম, সেলিম জাহাঙ্গীর, ইকবাল আহম্মেদ, আবু হানিফ তালুকদার রাসেল, রফিকুল ইসলাম স্বপন প্রমুখ।

এ বিষয়ে প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জায়েজুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে পরীক্ষার ফ্রি নামে টাকা নেওয়ার অভিযোগ ও কলেজের জমি অবৈধভাবে ইজারা দেওয়ার খবর জানতে চাওয়ায় তিনি আমার প্রতি ক্ষিপ্ত হন। যার ফলে এখন তিনি আমার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ এনেছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা।