পূর্বধলায় বৃষ্টিতে প্রশান্তির চেয়ে ভোগান্তিই বেশি

প্রকাশিত: ১১:৩১ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১১, ২০২২

পূর্বধলা প্রতিনিধিঃ চৈত্রের উত্তাপ সরিয়ে দিল স্বস্তির বৃষ্টি। রবিবার ও সোমবার রাতে হালকা বৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, কেবল পূর্বধলায় নয়, দেশের বিভিন্ন স্থানে কম-বেশি বৃষ্টি হয়েছে। এই বৃষ্টিতেই সারাদেশে শান্তির ধারা প্রবাহিত হলেও নেত্রকোনার পূর্বধলার চিত্র ছিলো ভিন্ন। এই সামান্য বৃষ্টি উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক গুলো পথচারীদের চলাচলের জন্য অভিশাপ হয়ে দেখা দিয়েছে।

শুধু নামেমাত্র সংস্কার হলেও নেত্রকোনা পূর্বধলা উপজেলার বেশিরভাগ রাস্তার অবস্থা বেহাল।

সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলার প্রধান রাস্তাগুলোর কার্পেটিং উঠে গিয়ে ছোট-বড় খানাখন্দে পরিণত হয়েছে। অনেক জায়গায় রাস্তার দু’ধারের মাটি সরে গিয়ে রাস্তাগুলো ভেঙে পড়েছে। ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা, ভ্যানগাড়ি ও মোটরসাইকেল আরোহীদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

উজ্জ্বল মিয়া ভ্যান চালিয়েই চলে যার সংসার। রাস্তা নিয়ে তার অভিযোগ, রাস্তার উন্নয়নে কোটি কোটি টাকার বাজেট হয়, কিন্তু রাস্তা ঠিক হয় না। আজ রাস্তা ঠিক করলে, কালকেই তা আবার নষ্ট হয়ে যায়। ভাঙা রাস্তার কারণে ভ্যানটানা খুব কষ্ট হয়। একটু ভারী মাল থাকলে গাড়ি উল্টে যায়।

পূর্বধলা বাজারের বাসিন্দা রমজান আলী বলেন, রাস্তা পিচপাথর উঠে জায়গায় জায়গায় গর্ত হয়ে আছে। তারমধ্যে একটু বৃষ্টি আসলে সব ডুবে যায়। মানুষ শান্তি মতো চলাচল তো দূরের কথা, বাজারঘাটও ঠিকভাবে করতে পারে না।

এবিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী মো. সাদিকুল জাহান রিদান এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফাউন্ডেশন ট্রেনিংয়ে কুমিল্লা আছেন। পরে দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তার দূর্গাপুর উপজেলা প্রকৌশলী খোয়াজুর রহমান এর সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।